• Home
  • সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন

Tag Archive

Tag Archives for " সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন "

অর্থনীতি সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন ও উত্তর

সাধারণ-জ্ঞানবিশ্ববিদ‌্যালয় ভর্তি কিংবা চাকরীর পরীক্ষায় অর্থনীতি সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান এর প্রশ্ন আসে। বিশেষ করে অর্থনীতি বিষয় নিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের জন্য অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ অনেক ধারণা রাখা উচিত। আজ কোর্সটিকায় আমরা অর্থনীতি বিষয়ক এমন কিছু সাধারণ জ্ঞানের প্রশ্ন আপনাদের সামনে উপস্থাপন করবো, যেগুলো ভর্তি পরীক্ষা, প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা কিংবা চাকরীর পরীক্ষা; সব জায়গাতেই প্রয়োজন হবে।

অর্থনীতি সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন ও উত্তর নিচে দেওয়া হলো-

১. কে অর্থনীতিকে ব্যষ্টিক ও সামষ্টিক এ দুটি অংশে বিভক্ত করেন?
উত্তর: রাগনার ফ্রেশ, ১৯৩৩ সালে

২. আধুনিক যুগে অর্থনীতিকে পৃথক কয়টি দৃষ্টিকোণ থেকে বিশ্লেষণ করা যায়?
উত্তর: দুটি, যথা- ক) ব্যষ্টিক খ) সামষ্টিক

৩. প্রাপ্তির দিক দিয়ে দ্রব্য কত প্রকার?
উত্তর: দু’প্রকার। যথা- ১) অবাধ দ্রব্য ২) অর্থনৈতিক দ্রব্য

৪. আর্থিক আয় কাকে বলে?
উত্তর: শ্রমের বিনিময়ে যে পরিমাণ অর্থ প্রাপ্ত হয়।

৫. প্রকৃত আয় কি?
উত্তর: আর্থিক আয়ের বিনিময়ের যে পরিমাণ দ্রব্যসামগ্রী ও সেবা ক্রয় করা যায়।

৬. অর্থনীতিতে ভোগ কি?
উত্তর: অভাব পূরণের উদ্দেশ্যে ব্যবহারের মাধ্যমে কোন দ্রব্যের উপযোগ নি:শেষ করা।

৭. সঞ্চয় কাকে বলে?
উত্তর: যে অংশ বর্তমানে ভোগ না করে ভবিষ্যতে ভোগের জন্য রেখে দেওয়া হয়।

৮. কোন দ্রব্যের বিনিময় মূল্য নির্ভর করে
উত্তর: চাহিদা ও যোগানের উপরে।

৯. সঞ্চয় ও বিনিয়োগের মধ্যে সম্পর্ক কি?
উত্তর: ঘনিষ্ট সম্পর্ক।

১০. কোন দ্রব্যের অভাব পূরণের ক্ষমতাকে কি বলে?
উত্তর: উপযোগ

১১. অভাব কি ?
উত্তর: মানুষের সকল অর্থনৈতিক কার্যাবলীর উৎস হল অভাব।

১২. অভাব কত প্রকার?
উত্তর: ৩ প্রকার। যথা- ১) প্রয়োজনীয় ২) আরামপ্রদ ৩) বিলাসজাত

১৩. মানুষের প্রয়োজনীয় অভাব কত প্রকার ও কি কি?
উত্তর: ৩ প্রকার। যথা: ১) জীবন ধারনের জন্য প্রয়োজন ২) দক্ষতার জন্য প্রয়োজন ৩) অভ্যাসজনিত প্রয়োজন

১৪. ভোগ ক্রিয়ার ভিত্তিতে বিলাস দ্রব্য কত প্রকার?
উত্তর: দুই প্রকার। যথা: ১) ক্ষতিকারক বিলাস দ্রব্য ২) ক্ষতিহীন বিলাস দ্রব্য

১৫. অভাবের বৈশিষ্ট্য প্রধানত কয়টি?
উত্তর: ৪টি। ১) অভাব অসীম ২) বিশেষ অভাব সসীম ৩) অভাব পরস্পর পরিপূরক ৪) অভাব পরস্পরের বিকল্প

১৬. কোন দ্রব্যের দ্বারা মানুষের অভাব পূরণের ক্ষমতাকে কি বলে?
উত্তর: উপযোগ।

১৭. অতিরিক্ত এক একক ভোগ করার ফলে মোট উপযোগের যে পরিবর্তন হয় তাকে কি বলে?
উত্তর: প্রান্তিক উপযোগ।

১৮. প্রান্তিক উপযোগ শূন্য হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত মোট উপযোগ কি হবে?
উত্তর: ক্রমান্বয়ে বাড়তে থাকবে।

১৯. প্রান্তিক উপযোগ ঋনাত্বক হলে
উত্তর: মোট উপযোগ কমবে।

২০. প্রান্তিক উপযোগ রেখাটি ডানদিকে নিম্নগামী হয় কেন?
উত্তর: ভোগ বাড়লে প্রান্তিক উপযোগ কমে।

২১. চাহিদার তিনটি বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন আকাঙ্খাকে কি বলে?
উত্তর: সক্রিয় চাহিদা।

২২. দামের সাথে চাহিদার নির্ভরশীলতাকে কি বলে?
উত্তর: চাহিদা বিধি।

২৩. চাহিদা সূচি কত প্রকার?
উত্তর: ২ প্রকার। যথা: ১) ব্যক্তিগত চাহিদা সূচি ২) বাজার চাহিদা সূচি

২৪. চাহিদা রেখা ডানদিকে নিম্নগামী কেন?
উত্তর: দাম ও চাহিদার মধ্যে বিপরীতমুখী সম্পর্কের কারণে

২৫. চাহিদা সূচি ও চাহিদা রেখা কি প্রকাশ করে?
উত্তর: চাহিদা বিধি

২৬. নির্দিষ্ট সময়ে নির্দিষ্ট দামে বিক্রেতাগণ কোন দ্রব্যের যে পরিমাণ বিক্রয় করতে প্রস্তুত থাকে, তাকে কি বলে?
উত্তর: যোগান।

২৭. যোগানের সাথে সরাসরি সম্পর্ক কিসের?
উত্তর: দামের।

২৮. বিক্রেতা যে দামে দ্রব্য বিক্রয় করতে রাজি থাকে, তাকে কি বলে?
উত্তর: যোগান দাম।

২৯. যে বিধির সাহায্যে দ্রব্যের দাম ও যোগানের সম্পর্ক প্রকাশ করা হয় তাকে কি বলে?
উত্তর: যোগান বিধি।

৩০. এককের অধিক স্থিতিস্থাপক যোগান রেখার ঢাল কিরূপ?
উত্তর: দাম অংক ছেদ করে ডান দিকে ঊর্ধ্বগামী।

৩১. এককের কম স্থিতিস্থাপক যোগান রেখার ঢাল কিরুপ?
উত্তর: ভুমি অংকে ছেদ করে ডান দিকে ঊর্ধ্বগামী।

৩২. আধুনিক অর্থ ব্যবস্থার প্রাণ কেন্দ্র কি?
উত্তর: বাজার

৩৩. যে বাজারে একজন মাত্র ক্রেতা থাকে তাকে কোন ধরনের বাজার বলে?
উত্তর: মনোপলি বাজার

৩৪. যে বাজারে দুইজন মাত্র ক্রেতা থাকে তাকে কোন ধরনের বাজার বলে?
উত্তর: ডুয়োপলি বাজার

৩৫. যে বাজারে একমাত্র বিক্রেতা থাকে তাকে কোন ধরনের বাজার বলে?
উত্তর: একচেটিয়া

৩৬. সময়ের ভিত্তিতে উৎপাদন ব্যয় কত প্রকার?
উত্তর: দুই প্রকার। যথা: ১) স্বল্পকালীন উৎপাদন ব্যয় ২) দীর্ঘকালীন উৎপাদন ব্যয়

৩৭. কোন দ্রব্যের অতিরিক্ত এক একক উৎপাদন করতে মোট খরচ যে পরিমাণ বৃদ্ধি পায় তাকে কি বলে?
উত্তর: প্রান্তিক ব্যয়

৩৮. উৎপাদনের পরিমাণ পরিবর্তনের সাথে সাথে ব্যয়েরও পরিবর্তন হলে, তাকে কি বলে?
উত্তর: পরিবর্তনীয় ব্যয় (VC)

৩৯. উৎপাদন শূন্য হলে পরিবর্তনীয় ব্যয় কি হবে?
উত্তর: শূন্য

৪০. উৎপাদন কাজে স্থির উপকরণের জন্য যে খরচ হয় তাকে কি বলে?
উত্তর: স্থির ব্যয়

৪১. কোন স্তরের পর উৎপাদন বাড়ানো হলে গড় ব্যয় ও প্রান্তিক ব্যয় বাড়ে?
উত্তর: কাম্য স্তরের পর।

৪২. উৎপাদিত দ্রব্য বাজারে বিক্রি করে যে অর্থ পাওয়া যায় তাকে কি বলে?
উত্তর: আয়

৪৩. আয় কত প্রকার?
উত্তর: তিন প্রকার। যথা: ১) মোট আয় ২) প্রান্তিক আয় ৩) গড় আয়

৪৪. উৎপাদিত দ্রব্যের সবই বিক্রয় করে যে অর্থ পাওয়া যায় তাকে কি বলে?
উত্তর: মোট আয়

৪৫. কোন দ্রব্যের বিনিময় মূল্যকে টাকার অংকে প্রকাশ করলে তাকে কি বলে?
উত্তর: দাম

৪৬. সময়ের ভিত্তিতে দামকে কয়ভাবে প্রকাশ করা যায়?
উত্তর: তিন ভাবে। যথা: ১) বাজার দাম ২) স্বল্পকালীন ভারসাম্য দাম ৩) দীর্ঘকালীন ভারসাম্য দাম।

৪৭. চাহিদা ও যোগানের দীর্ঘকালীন প্রভাবে যে দাম নির্ধারিত হয় তাকে কি বলে?
উত্তর: স্বাভাবিক দাম।

৪৮. একচেটিয়া কারবারের উদ্দেশ্য কি?
উত্তর: অধিক মুনাফা অর্জন।

৪৯. অধিক মুনাফা কখন অর্জন করা সম্ভব?
উত্তর: ভারসাম্য উপনিত হলে।

৫০. সমাজতন্ত্রে কিসের উপর নির্ভর করে দাম নির্ধারণ করা ‘হয়?
উত্তর: যোগান খরচ।

৫১. কোন ধরণের অর্থনীতিতে স্বল্পসময়ে উন্নতির চুড়ান্ত শিখরে পৌছাতে পারে?
উত্তর: সমাজতান্ত্রিক।

৫২. বাংলাদেশে উৎপাদিত ফসলকে প্রধানত কয় ভাগে ভাগ করা যায়?
উত্তর: দুই ভাগে।

৫৩ বাংলাদেশের প্রধান দুটি খাদ্য শস্যের নাম কি?
উত্তর: চাউল, গম।

৫৪. উৎপাদনের কয়টি খাত রয়েছে ও কি কি?
উত্তর: ৩টি। যথা: ১. প্রাথমিক খাত ২. মধ্যবর্তী খাত ৩. টারসিয়ারী খাত

৫৫. টারসিয়ারী খাতে উৎপাদিত সেবাকে কয় ভাগে ভাগ করা যায় ও কি কি?
উত্তর: ২ ভাগে। যথা: ১. বাণিজ্যিক সেবা ২. প্রত্যক্ষ বা ব্যক্তিগত সেব

৫৬. অর্থনীতিতে উৎপাদন বলতে কি বুঝায়?
উত্তর: উপযোগ সৃষ্টি করাকে।

৫৭. “যদি ভোগ বলতে উপযোগের ব্যবহার বুঝায় তবে উৎপাদন বলতে উপযোগ সৃষ্টি বুঝায়”- কার উক্তি?
উত্তর: Fraser.

৫৮. “বিক্রির জন্য দ্রব্য সামগ্রীর উৎপাদন এবং মূল্যের বিনিময়ে যে সেবাকার্য প্রদান করা হয় তাকে উৎপাদন বলে।”- উক্তিটি কার?
উত্তর: কেয়ার্নক্রসের।

৫৯. উপযোগ কত প্রকার ও কি কি?
উত্তর: ৪ প্রকার। যথা: ১. রূপগত উপযোগ ২. স্থানগত উপযোগ ৩. সময়গত উপযোগ ৪. সেবাগত উপযোগ

৬০. উৎপাদনের উপকরণ সমূহ কত প্রকার?
উত্তর: ৪ প্রকার। যথাঃ ১. ভূমি ২. শ্রম ৩. মূলধন ৪. সংগঠন

৬১. উৎপাদনের কোন উপাদান স্থানান্তরযোগ্য নয়?
উত্তর: ভূমি।

৬২. প্রকৃতির দান যাহা মানুষ সৃষ্টি করতে পারে না তাকে কি বলে?
উত্তর: ভূমি।

৬৩. একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ ভূমি যে পরিমাণ উৎপাদনে সক্ষম, তাকে কি বলে?
উত্তর: ভূমির উৎপাদন ক্ষমতা।

৬৪. কোন নির্দিষ্ট ভূমিতে শ্রম ও মূলধন নিয়োগ করলে কি হয়?
উত্তর: প্রান্তিক ও গড় উৎপাদন ক্রমশঃ হ্রাস পেতে থাকে।

৬৫. প্রান্তিক উৎপাদন ক্ষমতা বলতে কি বুঝায়?
উত্তর: প্রান্তিক আয় উৎপাদন এবং প্রান্তিক দ্রব্য উৎপাদন।

৬৬. “শ্রমিক তার শ্রম বিক্রয় করে মাত্র, নিজেকে বিক্রয় করে না।” উক্তিটি কার?
উত্তর: অধ্যাপক মার্শাল।

৬৭. উৎপাদনশীল ও অনুৎপাদনশীল শ্রমের ব্যাপারে কয়টি ধারণা রয়েছে?
উত্তর: তিনটি। যথা ১. ফিজিও ক্রাটিক ধারণা ২. ক্ল্যাসিক্যাল ধারণা ৩. আধুনিক ধারণা

৬৯. অর্থনীতির উপর লিখিত কয়টি মতবাদ উল্লেখযোগ্য?
উত্তর: ২টি। যথাঃ ১. ম্যালথাসের জনসংখ্যা তত্ত্ব ২. কাম্য জনসংখ্যা তত্ত্ব

৭০. “Man multiply like mice nin a barn”- উক্তিটি কার?
উত্তর: ক্যানটিলনের।

৭১. “ম্যালথাসের জনসংখ্যা তত্ত্ব” কোন গ্রন্থে কত সালে প্রকাশিত হয়?
উত্তর: “Essay on the principle of population” নামক গ্রন্থে ১৭৯৮ সালে।

৭২. ম্যালথাসের জনসংখ্যা তত্ত্বে কি উপেক্ষিত হয়েছে?
উত্তর: জনসংখ্যার গুনগতদিক

৭৩. জনসংখ্যার আধুনিক তত্ত্ব কি নামে পরিচিত?
উত্তর: কাম্য জনসংখ্যা তত্ত্ব।

৭৪. জনসংখ্যা তত্ত্বটির প্রবক্তা কারা?
উত্তর: ক্যানান, মিউজিক, কার ম্যান্ডর্স প্রমুখ অর্থনীতিবদি।

৭৫. শ্রমের দক্ষতা কি?
উত্তর: শ্রমের উপাদান ক্ষমতা।

৭৬. শ্রমের গতিশীলতা কত প্রকার?
উত্তর: চার প্রকার। যথাঃ ১. ভৌগোলিক ২. পেশাগত ৩. শিল্পগত ৪. স্তরগত

৭৭. ‘সঞ্চিত শ্রম ও সঞ্চিত প্রাকৃতিক সম্পদের যুক্ত ফল হচ্ছে মূলধন’ – কার উক্তি?
উত্তর: অর্থনীতিবিদ উহকসেল।

৭৮. ‘মূলধন উৎপাদনের উৎপাদিত উপাদান’- কার উক্তি?
উত্তর: বমবওয়ার্ক

৭৯. মালিকানার ভিত্তিতে মূলধন কত প্রকার?
উত্তর: দুই প্রকার। ১. ব্যক্তিগত ২. জাতীয়

৮০. কার্যকালের ভিত্তিতে মূলধন কত প্রকার?
উত্তর: দুই প্রকার। ১. স্থায়ী মূলধন ২. চলতি মূলধন

৮১. ব্যবহারের তারতম্যের ভিত্তিতে মূলধন কত প্রকার?
উত্তর: দুই প্রকার। যথাঃ ১. ভোগ্য মূলধন ২. উৎপাদক মূলধন

৮২. মূলধন গঠনের স্তর কয়টি?
উত্তর: তিনটি। ১. সঞ্চয় সৃষ্টি ২. সঞ্চয়ক বিনিয়োগ তহবিল ৩. সঞ্চিত অর্থ দ্বারা মূলধন দ্রব্য সংগ্রহ।

৮৩. ধনতন্ত্রে মূলধন সৃষ্টি কয়টি উদ্যোগ হয়ে থাকে?
উত্তর: দুইটি। যথাঃ ১. বেসরকারী উদ্যেগ ২. সরকারী উদ্যেগ

৮৪. অতিভোগ স্তর বা অর্থনীতির চূড়ান্ত পর্যায়ে উপনীত হওয়া কখন সম্ভব?
উত্তর: মূলধনের যথাযথ প্রয়োগ ও ব্যবহার করার পর।

৮৫. মূলধন গঠন কয়টি বিষয়ের উপর নির্ভর করে?
উত্তর: তিনটি। যথাঃ ১. সঞ্চয়ের সামর্থ্য ২. সঞ্চয়ের ইচ্ছা ৩. বিনিয়োগের সুযোগ

৮৬. মূলধনের অন্যতম রূপ?
উত্তর: অর্থ।

৮৭. পুঁজিবাদী সমাজের মূলধন গঠনের প্রক্রিয়া কয়টি ও কি কি?
উত্তর: ৩টি। ১. আর্থিক সঞ্চয়ের সৃষ্টি ২. আর্থিক সঞ্চয় সৃষ্টি ৩. আর্থিক সঞ্চয়কে মূলধন দ্রব্যে রূপান্তর

৮৮. ব্যবসায়ের অতি প্রাচীনতম রূপ কি?
উত্তর: এক মালিকানা কারবার।

৮৯. অংশীদারী কারবারে কতজন ব্যক্তি কারবারের সদস্য হতে পারে?
উত্তর: ন্যূনতম ২ জন এক সর্বাধিক ২০ জন।

৯০. যৌথ মূলধনী কারবার কত শতাব্দীতে চালু হয়?
উত্তর: ১৭তম শতাব্দীতে।

৯১. কোন দেশে প্রথম যৌথমূলধনী কারবার চালু হয়?
উত্তর: ইংল্যান্ডে।

৯২. বাংলাদেশ স্টক এক্সচেঞ্জ কয়টি ও কোথায় অবস্থিত?
উত্তর: ২টি। ঢাকা ও চট্টগ্রামে।

৯৩. ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়?
উত্তর: ১৯৫৪ সালে।

৯৪. চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ কত সালে কার্যক্রম শুরু করে?
উত্তর: ১৯৯৫ সালের ১০ অক্টোবর।

৯৫. উৎপাদনের সর্বশেষ উপাদান কোনটি?
উত্তর: সংগঠন।

৯৬. মিশ্র অর্থনীতিতে সংগঠনের দায়িত্ব পালন করে কে?
উত্তর: জনসাধারণ ও সরকার।

৯৭. ভূমি, শ্রম ও মূলধনের সমন্বয়কে কি বলে?
উত্তর:সংগঠন।

৯৮. সংগঠনের সর্বাপেক্ষা গুরুত্বপূর্ণ কাজ কি?
উত্তর: ঝুঁকি বহন।

৯৯. “শ্রম বিভাগ বাজারের আয়তন দ্বারা সীমাবদ্ধ” কার উক্তি?
উত্তর: এ্যাডাম স্মিথ।

১০০. মুসলমানদের হজ্বকে কেন্দ্র করে পবিত্র মক্কা নগরীতে কি কি শিল্প গড়ে উঠেছে?
উত্তর: পোশাক, জায়নামাজ, তসবীহ ইত্যাদি শিল্প।

বাংলাদেশ সর্ম্পকে সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন

সাধারণ-জ্ঞান প্রশ্নসাধারণ জ্ঞান বাংলাদেশ বিষয়াবলী বিভিন্ন প্রশ্ন চাকরী কিংবা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় আসার সম্ভবনা থাকে। প্রশ্নগুলো বিভিন্ন বিভিন্ন নির্বাচনী পরীক্ষার প্রশ্ন থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে শুধুমাত্র আপনাদের সুবিধার জন্য। এখানে ৫০টি প্রশ্ন দেওয়া আছে। এই প্রশ্নগুলো চাকরির পরীক্ষা জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ।

বাংলাদেশ সর্ম্পকে সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন ৫০টি প্রশ্ন নিচে দেওয়া হলো-

০১। হিলি স্থলবন্দরটি কোথায় অবস্থিত?

ক. সাতক্ষীরা

খ. দিনাজপুর

গ. চুয়াডাঙ্গা

ঘ. ময়মনসিংহ

 

০২। বাংলাদেশের “স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষ” কবে গঠন করা হয়?

ক. ১৯৯৯

খ. ২০০০

গ. ২০০১

ঘ. ১৯৯৭

 

০৩। “চিম্বুক পাহাড়” কোথায় অবস্থিত?

ক. খাগড়াছড়ি

খ. বান্দরবান

গ. রাজশাহী

ঘ. সিলেট

 

০৪। বাংলাদেশ বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সদস্যপদ লাভ করে কত সালে?

ক. ১৯৭২

খ. ১৯৯৫

গ. ১৯৭৮

ঘ. ১৯৮০

 

০৫। “জাতীয় শিক্ষক দিবস” কত তারিখে পালন করা হয়?

ক. ১৫ নভেম্বর

খ. ১৯ জানুয়ারী

গ. ৭ নভেম্বর

ঘ. ১৭ মার্চ

 

০৬। “জাহান্নাম হতে বিদায়” উপন্যাসটি কার লেখা?

ক. শওকত ওসমান

খ. জহির রায়হান

গ. আনোয়ার পাশা

ঘ. আল মাহমুদ

 

০৭। বাংলাদেশ শিল্প ব্যাংক প্রতিষ্ঠিত হয় কত সালে?

ক. ১৯৭৫

খ. ১৯৭২

গ. ১৯৭৩

ঘ. ১৯৭৪

 

০৮। “পানিহাটা দীঘি” কোথায় অবস্থিত?

ক. নরসিংদী

খ. শেরপুর

গ. রাজশাহী

ঘ. নওগাঁ

 

০৯। আধুনিক গণতন্ত্রের জনক কে?

ক. মন্টেস্কু

খ. কাল মার্কস

গ. জন লক

ঘ. লামব্রোবসা

 

১০। “সামাজিক চুক্তি” মতবাদা প্রবক্তা কে?

ক. এডাম স্মিথ

খ. জ্যাক রুশো

গ. মন্টেস্কু

ঘ. ডেভিড রিকার্ডো

 

১১। “গুনরাজ খান” কার উপাধি?

ক. বাহারাম খান

খ. মালাধর বসু

গ. মধুসূদন দত্ত

ঘ. মধুসূদন মজুমদার

 

১২। “রামায়ন” মহাকব্যটির রচয়িতা কে?

ক. বেদব্যাস

খ. নবীনচন্দ্র সেন

গ. বাল্মীকি

ঘ. যোগীন্দ্রনাথ বসু

৩। “ঘোড়াদীঘি” কোথায় অবস্থিত?

ক. রাজশাহী

খ. বাগেরহাট

গ. নওগাঁ

ঘ. দিনাজপুর

 

১৪। “দীপু নাম্বার টু” শিশুতোষ চলচিত্রটি কে নির্মাণ করেন?

ক. জহির রায়হান

খ. মোরশেদুল ইসলাম

গ. আনোয়ার হোসেন

ঘ. আওলাদ খান

 

১৫। ঢাকা জাদুঘর প্রতিষ্ঠিত হয় কত সালে?

ক. ১৯৭২

খ. ১৯১৩

গ. ১৯১৯

ঘ. ১৯১০

 

১৬। “সব কটি জানালা খুলে দাও না”। গানটির সুরকার কে?

ক. দ্বিজেন্দ্রলাল

খ. আপেল মাহমুদ

গ. নজরুল ইসলাম বাবু

ঘ. কোনটিই নয়

 

১৭। নিম্নের কোনজন ‘সওগাত’ পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন?

ক. প্রথম চৌধুরী

খ. বিষ্ণু দে

গ. মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন

ঘ. মোজাম্মেল হক

 

১৮। ১ ও ৫ টাকার ধাতব মুদ্রা তৈরি করা হয় কোথা থেকে?

ক. জার্মানী

খ. কানাডা

গ. অষ্ট্রেলিয়া

ঘ. জাপান

 

১৯। বাংলাদেশে মুক্তবাজার অর্থনীতি চালু হয় কত সালে?

ক. ১৯৯০

খ. ১৯৯১

গ. ১৯৮৮

ঘ. ১৯৮৬

 

২০। সুপ্রীম কোর্টের বিচারপতিদের কার্যাকাল কত বছর?

ক. ৬০ বছর

খ. ৬২ বছর

গ. ৬৫ বছর

ঘ. ৬৭ বছর

 

২১। মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র অ ঝঞঅঞঊ ওঘ ইঙগ এর পরিচালক কে?

ক. দিলদার হোসেন

খ. আবু সায়ীদ

গ. মোস্তফা কামাল

ঘ. জহির রায়হান

 

২২। বাংলাদেশের জাতীয় দিবস কোনটি?

ক. ২৫ মার্চ

খ. ১৬ ডিসেম্বর

গ. ২৬ মার্চ

ঘ. ২ মার্চ

 

২৩। ‘নির্মল চর’ কোথায় অবস্থিত?

ক. নাটোর

খ. রাজশাহী

গ. রংপুর

ঘ. বরিশাল

 

২৪। ‘ভবানীগঞ্জের’ বর্তমান নাম কি?

ক. ভোলা

খ. গাইবান্ধা

গ. সিলেট

ঘ. হবিগঞ্জ

 

২৫। বাংলাদেশের প্রথম মহিলা কুটনীতিক কে?

ক. মাহমুদা হক চৌধুরী

খ. সুফিয়া আখতার

গ. তাহমিনা খান ডলি

ঘ. নাজমুন আরা বেগম

 

২৬। সার্কভূক্ত কোন দেশের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক সম্পর্ক নেই?

ক. মালদ্বীপ

খ. নেপাল

গ. ভুটান

ঘ. শ্রীলংকা

 

২৭। ১০ টাকার পলিমার নোট কোন দেশ থেকে তৈরি করা হয়?

ক. জার্মানি

খ. অষ্ট্রেলিয়া

গ. জাপান

ঘ. সুইডেন

 

২৮। “প্রাইভেটাইজেশন বোর্ড” কত সালে গঠিত হয়?

ক. ১৯৯২

খ. ১৯৯৩

গ. ১৯৯০

ঘ. ১৯৯১

 

২৯। বর্তমানে বাংলাদেশকে সবচেয়ে বেশি সাহায্য প্রদান করে কোন দেশ?

ক. অষ্ট্রেলিয়া

খ. জাপান

গ. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

ঘ. বৃটেন

 

৩০। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশন (বি.আর.টি.গি. কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়?

ক. ১৯৬০

খ. ১৯৬৫

গ. ১৯৬২

ঘ. ১৯৬১

 

৩১। ভৈরব ব্রীজ কোন নদীর উপর অবস্থিত?

ক. পদ্মা

খ. মেঘনা

গ. যমুনা

ঘ. কর্ণফুলী

 

৩২। “ভাটিয়ালী” বাংলাদেশের কোন অঞ্চলের গান?

ক. রংপুর

খ. ময়মনসিংহ

গ. রাজশাহী

ঘ. সিলেট

 

৩৩। “শিশু একাডেমী” প্রতিষ্ঠিত হয় কত সালে?

ক. ১৯৭৬

খ. ১৯৭৭

গ. ১৯৮৮

ঘ. ১৯৯২

 

৩৪। “মাতা, মাতৃভাষা আর মাতৃভূমি- প্রত্যেক মানুষের পরম শ্রদ্ধার বস্তু” উক্তিটি কার?

ক. ড.মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ

খ. রবি ঠাকুর

গ. কাজী নজরুল ইসলাম

ঘ. মাইকেল মধুসূদন দত্ত

 

৩৫। “আমির হামজা” কাব্যটি রচনা করেন –

ক. সৈয়দ আমির আলী

খ. ফকির গরিবুল্লাহ

গ. শাহ মুহাম্মদ সগীর

ঘ. কায়কোবাদ

 

৩৬। শেষ লেখা কি?

ক. কাব্য

খ. গ্রন্থ

গ. পত্রকাব্য

ঘ. নাট্যকাব্য

 

৩৭। ‘সংশপ্তক’ এর রচয়িতা –

ক. কাজী এনামুল হক

খ. শহীদুল্লাহ কায়সার

গ. আবদুল হাকিম

ঘ. টেকচাঁদ ঠাকুর

 

৩৮। “বঙ্গবন্ধু পদক” দেওয়া হয় কোন ক্ষেত্রে?

ক. স্বাধীনাত ক্ষেত্রে অবদানের জন্য

খ. কৃষি ক্ষেত্রে

গ. বিজ্ঞান ক্ষেত্রে

ঘ. চিকিৎসা ক্ষেত্রে

 

৩৯। হিযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরটি স্থপতি-

ক. লারোস

খ. শামীম শিকদার

গ. হামিদুজ্জামান

ঘ. লুই-আই-কান

 

৪০। সোনারগাঁও এর পূর্ব নাম কি?

ক. সোনাপুর

খ. সুধারাম

গ. সুবর্ণগ্রাম

ঘ. চন্দ্রদ্বীপ

 

৪১। বাংলাদেশের জাতীয় মহিলা ক্রীড়া উন্নয়ন সংস্থা কবে গঠিত হয়?

ক. ১৯৭১

খ. ১৯৭২

গ. ১৯৭৬

ঘ. ১৯৭৬

 

৪২। শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত হয় –

ক. ১৬ ডিসেম্বর

খ. ১৪ ডিসেম্বর

গ. ২৬ মার্চ

ঘ. ৩১ ডিসেম্বর

 

৪৩। “ক্রীতদাসের হাসি” কার লেখা?

ক. শওকত ওসমান

খ. সুভাষ চন্দ্র বসু

গ. বুদ্ধদেব বসু

ঘ. জীবনানন্দ দাস

 

৪৪। হিরণ পয়েন্ট কি?

ক. একটি ক্রীড়া সংস্থা

খ. একটি বিখ্যাত সাহিত্য

গ. একটি মনোরম স্থান

ঘ. একটি মাদক দ্রব্য

 

৪৫। সংশপ্তক কোথায় অবস্থিত?

ক. ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে

খ. রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে

গ. জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে

ঘ. চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে

 

৪৬। বাংলাদেশে কোন স্পীকার পরবর্তীতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন?

ক. মোহাম্মদ উল্লাহ

খ. শামসুল হুদা চৌধুরী

গ. শাহ আবদুল হামিদ

ঘ. হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী

 

৪৭। নর্থবেঙ্গল পেপার মিলে ব্যবহৃত কাঁচামাল কি?

ক. বাঁশ

খ. আখের ছোবড়া

গ. খড়

ঘ. পাটখড়ি

 

৪৮। খাজা আবদুল গণি কর্তৃক আহসান মঞ্জিল নির্মিত হয় কত সালে?

ক. ১৮৩২

খ. ১৮৬২

গ. ১৮৭২

ঘ. ১৮৮২

 

৪৯। ছোট সোনা মসজিদ কোথায় অবস্থিত?

ক. চাপাই নবাবগঞ্জ

খ. সিলেট

গ. ঢাকা

ঘ. বাগেরহাট

 

৫০। বাংলাদেশ বিজ্ঞান যাদুঘর ঢাকার কোথায় অবস্থিত?

ক. গুলিস্তান

খ. আগারগাঁও

গ. সেগুনবাগিচা

ঘ. ধানমন্ডি

দ্বিপক্ষীয় ও বহুপক্ষীয় সম্পর্ক নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও সমাধান

বিসিএস প্রিপারেশনবর্তমান বহুমেরুকেন্দ্রিক বিশ্বে প্রতিনিয়তই দ্বিপক্ষীয় ও বহুপক্ষীয় সম্পর্কে ঘটে চলেছে নানা ধরনের ঘটনা। বদলে যাচ্ছে সম্পর্কের সমীকরণ এবং গড়ে উঠছে নানা জোট ও পাল্টা জোট। নিচে দ্বিপক্ষীয় ও বহুপক্ষীয় সম্পর্কের ওপর থাকছে গুরুত্বপূর্ণ নানা প্রশ্ন ও উত্তর।

চীন ও তাইওয়ান দ্বিপক্ষীয় ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত

প্রশ্ন ১ : তাইওয়ানের অবস্থান কোথায়?
উত্তর : চীনের দক্ষিণ-পূর্ব উপকূল থেকে প্রায় ১০০ মাইল দূরে।

প্রশ্ন ২ : বিশ্বের কয়টি রাষ্ট্র তাইওয়ানকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে?
উত্তর : মাত্র ১৩টি।

প্রশ্ন ৩ :তাইওয়ানের স্বাধীনতা | সমর্থনকারী সংস্থার নাম কী?
উত্তর : তাইওয়ান ফাউন্ডেশন ফর ডেমােক্রেসি এবং ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ফান্ড।

প্রশ্ন ৪ : কত সালের আইন অনুযায়ী তাইওয়ান দ্বীপের রক্ষা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য বাধ্যতামূলক করা হয়েছে?
উত্তর : ১৯৭৯ সালের আইন।

প্রশ্ন ৫ : তাইওয়ানের নতুন ‘দক্ষিণ বন্ধননীতি’র উদ্দেশ্য কী?
উত্তর : তাইপের সঙ্গে আসিয়ান, দক্ষিণ এশিয়া এবং ওশেনিয়া অঞ্চলের সম্পর্ক দৃঢ় করা।

প্রশ্ন ৬ : ২ আগস্ট ২০২২ ন্যান্সি পেলােসি তাইওয়ান সফর করায় চীন কোথায় সামরিক মহড়া পরিচালনা করে?
উত্তর : তাইওয়ান প্রণালিতে।

প্রশ্ন ৭ : ২৮ আগষ্ট ২০২২ তাইওয়ান প্রণালিতে মহড়া পরিচালনা করা যুক্তরাষ্ট্রের জাহাজ দুটির নাম কী?
উত্তর : মিসাইল ক্রুজার ইউএসএস অ্যান্টিটাম এবং ইউএসএস চ্যান্সেলর সভিল।

প্রশ্ন ৮ :চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংয়ের ‘নয়া লং মার্চ’-এর উদ্দেশ্য কী?
উত্তর : চীনের অর্থনৈতিক উন্নয়নের পথে সৃষ্ট সব বাধা মােকাবিলা করা।

দ্বিপক্ষীয় ইস্যুতে ইরান ও যুক্তরাষ্ট্র

প্রশ্ন ৯ : নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী পাঁচ সদস্য যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, চীন, রাশিয়া এবং জার্মানি ইরানের সঙ্গে পারমাণবিক
চুক্তি করেছিল কত সালে?
উত্তর : ২০১৫ সালে।

প্রশ্ন ১০ : নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী পাঁচ সদস্য ও জার্মানিকে নিয়ে ছয় জাতির সঙ্গে ইরান যে চুক্তি করে, তার নাম কী?
উত্তর : জয়েন্ট কম্প্রিহেনসিভ প্ল্যান অব অ্যাকশন।

প্রশ্ন ১১ : কত সালে জয়েন্ট কম্প্রিহেনসিভ প্ল্যান অব অ্যাকশন চুক্তি কার্যকর হয়?
উত্তর : ২০১৫ সালে।

প্রশ্ন ১২ : যুক্তরাষ্ট্র জয়েন্ট কম্প্রিহেনসিভ প্ল্যান অব অ্যাকশন চুক্তি থেকে বের হয়ে যায় কবে?
উত্তর : ২০১৮ সালে।

প্রশ্ন ১৩: আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা (আইএইএ) ইরানকে জ্বালানি খাতে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধি আহরণের মাত্রা বেঁধে দেয় কত শতাংশ?
উত্তর : ৩ দশমিক ৬৭ শতাংশ।

প্রশ্ন ১৪ : জয়েন্ট কম্প্রিহেনসিভ প্ল্যান অব অ্যাকশন (জেসিপিওএ) চুক্তির বিষয়বস্তু কী?
উত্তর : ইরান পরমাণু কর্মসূচি সীমিত করার বিনিময়ে ইরানের ওপর বিভিন্ন ধরনের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া।

প্রশ্ন ১৫ : ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্র প্রথম নিষেধাজ্ঞা আরােপ করে কত সালে?
উত্তর : ১৯৭৯ সালে।

প্রশ্ন ১৬ : ১৯৮৫ সালে যুক্তরাষ্ট্র কোন দেশের বিদ্রোহীদের সহযােগিতার জন্য ইরানের কাছে অস্ত্র বিক্রি করে?
উত্তর : নিকারাগুয়ার কন্ট্রা বিদ্রোহীদের।

প্রশ্ন ১৭ :ইরানের কোন প্রেসিডেন্ট ডলারের বিনিময়ে ইরানের তেলসম্পদের মােট মজুতের ৮০ শতাংশ যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের
হাতে তুলে দেয়?
উত্তর : মুহাম্মদ রেজা শাহ পাহলভি।

প্রশ্ন ১৮ :পশ্চিমা স্বার্থসহায়ক মুহাম্মদ রেজা শাহ পাহলভি ক্ষমতায় আসেন কত সালে?
উত্তর : ১৯৫৩ সালে।

প্রশ্ন ১৯ : কত সালে মুহাম্মদ রেজা শাহ পাহলভির পতন হয়?
উত্তর : ১৯৭৯ সালে।

দ্বিপক্ষীয় ইস্যুতে বাংলাদেশ-ভারত

প্রশ্ন ২০ : বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার মৈত্রী চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় কত তারিখে?
উত্তর : ১৯ মার্চ ১৯৭২।

প্রশ্ন ২১ : বাংলাদেশ-ভারত গঙ্গার পানি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় কত তারিখে?
উত্তর : ১২ ডিসেম্বর ১৯৯৬।

প্রশ্ন ২২ : বাংলাদেশ-ভারত গঙ্গার পানি চুক্তির মেয়াদ কত বছর?
উত্তর : ৩০ বছর।

প্রশ্ন ২৩: বাংলাদেশ-ভারত গঙ্গার পানি চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে কত সালে?
উত্তর : ২০২৬ সালে।

প্রশ্ন ২৪ : কত তারিখে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে আনুষ্ঠানিক বিনিময়ের মাধ্যমে ছিটমহলের মানবিক সমস্যার সমাধান হয়?
উত্তর : ১ আগস্ট ২০১৫।

প্রশ্ন ২৫ :ভারত কত তারিখে ও কোন বন্দর দিয়ে ট্রানজিট চুক্তির আওতায় মেঘালয়ে পণ্য পরিবহন শুরু করে?
উত্তর :১০ আগষ্ট ২০২২ তামাবিল স্থলবন্দর দিয়ে।

প্রশ্ন ২৬ : বাংলাদেশ-ভারত আন্তঃসীমান্ত নদী কয়টি?
উত্তর : ৫৪টি।

প্রশ্ন ২৭ : বাংলাদেশ-ভারত যৌথ নদী কমিশন (JRC) গঠিত হয় কত সালে?
উত্তর : ১৯৭২ সালে।

প্রশ্ন ২৮ : কোন নদীর ওপর বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু নির্মিত হয়েছে?
উত্তর : ফেনী নদী।

প্রশ্ন২৯ : বাংলাদেশের টেরিটোরিয়াল সমুদ্রের দৈর্ঘ্য কত?
উত্তর : ১ লাখ ১৮ হাজার ৮১৩ বর্গকিলােমিটার।

প্রশ্ন ৩০ : বাংলাদেশ ভারতের কাছ সমুদ্রসীমা জয়লাভ করে কত তারিখে?
উত্তর : ৭ জুলাই ২০১৪।

প্রশ্ন ৩১ : বাংলাদেশ ভারতের কাছ থেকে কত বর্গকিলােমিটার সমুদ্র এলাকা লাভ করে?
উত্তর : ১৯ হাজার ৪৬৭ বর্গকিলােমিটার।

প্রশ্ন ৩২ : কোন আদালতের রায়ে বাংলাদেশ ভারতের কাছ থেকে ১৯ হাজার ৪৬৭ বর্গকিলােমিটার সমুদ্র এলাকা জয়লাভ করে?
উত্তর : নেদারল্যান্ডসের স্থায়ী সালিসি আদালত।

প্রশ্ন ৩৩ : রামপালে সুপার ক্রিটিক্যাল কয়লাচালিত তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের ইউনিট-১ উদ্বোধন করেন কে?
উত্তর : ভার্চুয়ালি বাংলাদেশ ও ভারতের সরকারপ্রধান।

প্রশ্ন ৩৪ : কত তারিখে রামপালে সুপার ক্রিটিক্যাল কয়লাচালিত তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের ইউনিট-১ উদ্বোধন করা হয়?
উত্তর : ৬ সেপ্টেম্বর ২০১২।

প্রশ্ন ৩৫ : বাংলাদেশ ও ভারত রামপালে সুপার ক্রিটিক্যাল কয়লাচালিত তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের উৎপাদিত বিদ্যুৎতের কী পরিমাণ পাবে?
উত্তর : ৫০:৫০।

প্রশ্ন ৩৬ : রামপালের সুপার ক্রিটিক্যাল কয়লাচালিত তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের মােট বিদ্যুৎ উৎপাদনক্ষমতা কত?
উত্তর : ১হাজার ৩২০ মেগাওয়াট।

প্রশ্ন ৩৭ : বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বন্ধুত্বের প্রতীক হিসেবে তৃতীয় ট্রেন ‘মিতালী এক্সপ্রেস’ বাণিজ্যিকভাবে চালু হয়েছে কখন?
উত্তর : ২০২২ সালে।

বাংলাদেশ, মিয়ানমার ও চীন সম্পর্ক

প্রশ্ন ৩৮ : সম্প্রতি যুদ্ধক্ষেত্রে কোন দেশ পােড়ামাটি নীতি গ্রহণ করেছে?
উত্তর : মিয়ানমার।

প্রশ্ন ৩৯ : কত সালে মিয়ানমারের সামরিক জান্তা রােহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব থেকে বঞ্চিত করে?
উত্তর : ১৯৮২ সালে।

প্রশ্ন ৪০ : জাতিগত নিধনের শিকার হয়ে রােহিঙ্গারা প্রথম কত সালে বাংলাদেশে আসে?
উত্তর : ১৯৭৮ সালে।

প্রশ্ন ৪১ : আট লক্ষাধিক রােহিঙ্গা সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে কত সালে?
উত্তর ৪২ : ২০১৭ সালে।

প্রশ্ন ৪৩ : কখন রাখাইনে ক্লিয়ারেন্স অপারেশন চালানাে হয়?
উত্তর : ২০১৭ সালে।

প্রশ্ন ৪৪ : কত তারিখে বাংলাদেশ মিয়ানমার রােহিঙ্গা প্রত্যাবাসন-সংক্রান্ত দ্বিপক্ষীয় চুক্তি করে?
উত্তর : ২৩ নভেম্বরের ২০১৭।

প্রশ্ন ৪৫ : রােহিঙ্গাদের রাখাইনে ফেরত পাঠানাের বিষয়ে ‘ফিজিক্যাল অ্যারেঞ্জমেন্ট’ নামের চুক্তি চূড়ান্ত হয় কত তারিখে?
উত্তর : ১৬ জানুয়ারি ২০১৮।

প্রশ্ন ৪৬ : সম্প্রতি মিয়ানমার বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী কোথায় গােলা ছােড়ে?
উত্তর : বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার এলাকায়।

প্রশ্ন ৪৭ : কোন দুটি দেশের মধ্যে মংডু সীমান্ত অবস্থিত?
উত্তর : বাংলাদেশ ও মিয়ানমার।

প্রশ্ন ৪৮ : চীন রাখাইনের কোন স্থানে গভীর সমুদ্রবন্দর গড়ে তুলছে?
উত্তর : কিয়াকফুতে।

প্রশ্ন ৪৯ : কোন প্রজেক্ট ভারতের কলকাতা বন্দরকে রাখাইন রাজ্যের সিটওয়ে (আকিয়াব) বন্দরের সঙ্গে সংযুক্ত করবে?
উত্তর : কালাদান মাল্টিমােডাল ট্রানজিট ট্রান্সপাের্ট প্রজেক্ট।

চীন-ভারত সম্পর্ক

প্রশ্ন ৫০ : চীনের অর্থনীতির আয়তন ভারতের কত গুণ?
উত্তর : পাঁচ গুণ।

প্রশ্ন ৫১ : নাথুলা গিরিপথ কোন দুটি দেশকে যুক্ত করেছে?
উত্তর : ভারত ও চীন।

প্রশ্ন ৫২ : ১৯৬২ সালের চীন-ভারত যুদ্ধের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ময়দান কোথায় ছিল?
উত্তর : পূর্ব লাদাখ।

প্রশ্ন ৫৩ : ২০২১ সালে কোন দুটি দেশ ভুটানের ডােকলাম মালভূমিতে মুখােমুখি অবস্থান নেয়?
উত্তর : চীন ও ভারত।

প্রশ্ন ৫৪ : ভুটানের ডােকলাম মালভূমিতে ভারত ও চীনা সেনার সংঘর্ষ হয় কত সালে?
উত্তর : ২০১৭ সালে।

প্রশ্ন ৫৫ : গালওয়ান উপত্যকার মালিকানা নিয়ে চীন ও ভারত কবে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়ায়?
উত্তর : ১৫ জুন ২০২০।

প্রশ্ন ৫৬ : দক্ষিণ চীন সাগরে ভারত যুদ্ধজাহাজ মােতায়েন করে কত সালে?
উত্তর : ২০২০ সালে।

প্রশ্ন ৫৭ : প্যাংগং হ্রদের উত্তর পাড়ের পূর্ব লাদাখ অঞ্চলকে কী বলে?
উত্তর : ফিঙ্গার-ফাইভ।

চীন-পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্রগুলাের সম্পর্ক

প্রশ্ন ৫৮ : দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের ‘গ্রে জোন’ কৌশলটি মূলত কী?
উত্তর : যুদ্ধ নয় কিন্তু যুদ্ধের মতাে কর্মকাণ্ড।

প্রশ্ন ৫৯ : দক্ষিণ চীন সাগরের প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জ চীনের দখলে থাকলেও মালিকানা দাবি করে কোন দুটি দেশ?
উত্তর : ভিয়েতনাম ও ফিলিপাইন।

প্রশ্ন ৬০ : কোন দুটি দেশ প্যারাসেল দ্বীপটিকে এখনাে নিজেদের বলে দাবি করে?
উত্তর : ভিয়েতনাম ও চীন।

সিরিয়া ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া

প্রশ্ন ৬১ : বাশার আল-আসাদ সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট হন কত সালে?
উত্তর : ২০০০ সালে।

প্রশ্ন ৬২ : ২০১০ সালে তিউনিসিয়ায় আরব বসন্তের সূচনার মধ্য দিয়ে সিরিয়াজুড়ে গণ-আন্দোলন শুরু কত তারিখে?
উত্তর : ১৫ মার্চ ২০১১।

প্রশ্ন ৬৩ : বাথ পার্টি সিরিয়া শাসন করছে কত বছর ধরে?
উত্তর : ৪০ বছর ধরে।

প্রশ্ন ৬৪ : বাশার আল-আসাদ সরকারের সমর্থনে রাশিয়া কবে সিরিয়া যুদ্ধে প্রকাশ্যে জড়িয়ে পড়ে?
উত্তর : ২০১৫ সালে।

প্রশ্ন ৬৫ : কোন দেশের গৃহযুদ্ধ স্মরণকালের সবচেয়ে বড় শরণার্থী সংকটের জন্ম দিয়েছে?
উত্তর : সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ।

প্রশ্ন ৬৬ : সিরিয়ায় সামরিক বাহিনীর বিদ্রোহীরা ফ্রি সিরিয়ান আর্মি গঠনের ঘােষণা দেয় কত সালে?
উত্তর : ২০১১ সালে।

প্রশ্ন ৬৭ : ইসলামিক স্টেটে (আইএস) ইরাক ও সিরিয়ার একটা বড় অংশ দখল করে খেলাফত ঘােষণা করে কখন?
উত্তর : ২০১৪ সালে।

প্রশ্ন ৬৮ : তুরস্ক ফ্রি সিরিয়ান বিদ্রোহী আর্মিকে সরাসরি মদদ দেয় কখন?
উত্তর : ২০১১ সালের সেপ্টেম্বর নাগাদ।

প্রশ্ন ৬৯ : ইসলামিক স্টেট (আইএস) সিরিয়ার পাকাপােক্তভাবে ঘাঁটি গেড়ে বসে কখন?
উত্তর :২০১৬ সালে।

প্রশ্ন ৭০ : যুক্তরাষ্ট্র আইএসের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরােধী যুদ্ধ শুরু করে কত সালে?
উত্তর : ২০১৪ সালে।

প্রশ্ন ৭১ : রাশিয়া কত সালে সরকারবিরােধী বিদ্রোহী ফ্রি সিরিয়ান আর্মি ও আইএসকে সন্ত্রাসী গােষ্ঠী হিসেবে অভিহিত করে?
উত্তর : ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে।

প্রশ্ন ৭২ : আসাদবিরােধী সিরিয়ান ডেমােক্রেটিক ফোর্সের (এসডিএফ) সাহায্যের জন্য পশ্চিমারা সিরিয়ায় হামলা অব্যাহত রেখেছে কত সাল থেকে?
উত্তর : ২০১৪ সাল থেকে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পারস্পরিক সম্পর্ক

প্রশ্ন ৭৩ : বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে থাকা করিডরটির নাম কী?
উত্তর : শিলিগুড়ি করিডর।

প্রশ্ন ৭৪ : শিলিগুড়ি করিডরটি কত কিলােমিটার লম্বা?
উত্তর : ৬০ কিলােমিটার।

প্রশ্ন ৭৫ : কোনটি ভারতের মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে সেভেন সিস্টার্সে যােগাযােগের একমাত্র পথ?
উত্তর : শিলিগুড়ি করিডর।

প্রশ্ন ৭৬ : ২০২০-২১ অর্থবছরে কোন দেশটি মিয়ানমারে সবচেয়ে বেশি বিনিয়ােগ করেছে?
উত্তর : সিঙ্গাপুর।

প্রশ্ন ৭৭ : ২০২২ সালে আসিয়ানের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় কোথায়?
উত্তর : কম্বােডিয়ায়।

প্রশ্ন ৭৮ : ভারতের সঙ্গে মিয়ানমারের সীমান্ত কত কিলােমিটার?
উত্তর : ১ হাজার ৬০০ কিলােমিটার

প্রশ্ন ৭৯ : কোন আঞ্চলিক জোট চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের ঠান্ডা যুদ্ধে বাফার জোনের মতাে কাজ করে?
উত্তর : আসিয়ান জোট।

প্রশ্ন ৮০ : আসিয়ান জোট মিয়ানমারকে বাধাহীন মানবিক প্রবেশাধিকার দিতে কত দফা ঐকমত্যের অঙ্গীকার মেনে চলার জন্য জোর দেয়?
উত্তর : পাঁচ দফা।